বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
যুবলীগের আহবায়ক চপলের মা সুফিয়া নুরের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান শেখ পরশ ও সাধারন সম্পাদক মাইনুল হোসেন উখিয়ার হিজলিয়া খালের ভাঙ্গন অংশ পরিদর্শনে ইউএনও নিজাম উদ্দিন আহমেদ নাইক্ষ্যংছড়ি থানা পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-১ নড়াইলে বঙ্গবন্ধুর ৪৬ তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা  নড়াইলে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টা মামলা  গোবিন্দগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হুদা ও যুবলীগের আহবায়ক চপলের মাতা বেগম সুফিয়া নুরের জানাজা ও দাফন সম্পন্ন উখিয়ায় র‍্যাব-১৫’র অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-১ গোবিন্দগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারকে পরিচ্ছন্ন রাখতে পৌর মেয়রের উদ্যোগ অবৈধ ভাবে ভারত থেকে ফেরার পথে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্তে ৭ বাংলাদশী আটক গোবিন্দগঞ্জে লকডাউন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মানবিক খাদ্য সহায়তা বিতরণ উখিয়ায় অপহ্নত আরএসও নেতা মৌলবী আবু সৈয়দ উদ্ধার ক্বারী কামাল আহমদের স্নরণে রাজাপালং মাদ্রাসায় খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিল মরিচ্যা চেকপোস্টে ছয়টি স্বর্ণেরবারসহ থাইংখালীর আবছার আটক! ঘুমধুমের মংজয় পাড়ায় পাহাড়ধ্বসে ক্ষতিগ্রস্ত আয়ুব আলীর পাশে ব্যবসায়ী হায়দার আলী…….. পঞ্চগড়ে প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সামগ্রী পেলো কর্মহীন হয়ে পড়া পরিবহন শ্রমিকরা গর্জনিয়া-কচ্ছপিয়ায় বাঁকখালীর ভাঙ্গন পরিদর্শনকালে  এমপি কমল  যে কোন মূল্যে বাঁকখালী নদীর ভাঙ্গন প্রতিরোধ করা হবে জয়পুরহাটে বজ্রপাতে ২ কৃষকের মৃত্যু, আহত ৩ উখিয়ার সাত নম্বর ক্যাম্পে গুলি করে একজনকে অপহরণ,একজন গুলিবিদ্ধ নড়াইলে দুইজনের মৃত্যু
উলিপুরে বন্যা পরিস্থিতির মারাত্মক অবনতি

উলিপুরে বন্যা পরিস্থিতির মারাত্মক অবনতি

রুহুল আমিন রুকু, স্টাফ রিপোর্টার: কুড়িগ্রামের উলিপুরে বন্যার পানিতে দিশেহারা হয়ে বাড়ি-ঘর ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছে মানুষ।উপজেলার প্রায় লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী হয়ে খাদ্য সংকটে পড়েছে।

গত কয়েক দিনের টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের কারণে উলিপুরের বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে।মঙ্গলবার(১৪ জুলাই) দুপুরে পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, ধরলা নদী ব্রীজ পয়েন্টে১০৩, ব্রহ্মপুত্র চিলমারী পয়েন্টে ৯৩ ও নুনখাওয়া পয়েন্ট ৮৭ সেন্টিমিটার বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।তিস্তা ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বৃদ্ধি পেয়ে উপজেলার থেতরাই,ধামশ্রেণী,হাতিয়া ও বজরা ইউনিয়নসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের নতুন নতুন গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।এতে চরম দূর্ভোগে পড়েছে গর্ভবতি মা শিশুরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, থেতরাই ইউনিয়নের পাকারমাথা নামক এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় পানিবন্দী হয়ে খাদ্য সংকটে পড়েছে মানুষ।অনেকেই আশ্রয় নিয়েছেন স্কুলের মাঠসহ উঁচু জায়গায়।পানিবন্দী হয়ে গবাদীপশু নিয়ে দুর্ভোগে রয়েছেন বানভাসীরা।এমনিতেই নদী ভাঙনের শিকার এ ইউনিয়নের তিস্তা পাড়ের মানুষ,তার মধ্যে আবার বন্যার পানি।

পানিবন্দী চাঁদ মিয়া,শহিদুল, চায়না,সাহেরা, জোবেদ মুন্সি,আশরাফুল,নুর ইসলামসহ আরো অনেকে এ প্রতিবেদককে জানান, হামরা বানের পানিত কি ভাসি যামো,কাইয়ো হামার খোঁজ নেয়না।ঘর-বাড়ি ছাড়ি স্কুলের মধ্য আছি।এমনিতো ভাইরাসের কারণে কামাই(ইনকাম) নাই,ফের আইলো বানের পানি,কনতো হামরা এলা কি করমো।কাজ কর্ম নাই,দিন আনি দিন খাই।হামার কথা কাইয়ো ভাবে না,বানের পানি আর নদী ভাঙন হামার সব শেষ করিল।

মঙ্গলবার(১৪ জুলাই) দুপুরে উলিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: আব্দুল কাদের জানান, পানিবন্দী মানুষের খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।জেলা প্রশাসন থেকে খাদ্য সহায়তা পেয়েছি,যা প্রতিটি ইউনিয়নে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক মো: রেজাউল করিম জানান, পানিবন্দী মানুষ ও বন্যা কবলিত এলাকার খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। জেলায় ৪৩৮টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তত রাখা হয়েছে। ৪০০মে. টন চাল, ১১ লাখ টাকা ও ৩ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার উপজেলা পর্যায়ে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2020 nbnews71.com
Design & Developed BY NB Web Host