শিরোনাম

পরিবারের সাথে ঈদের নামাজ আদায় করা হলো না কলারোয়া লাঙ্গলঝাড়া গ্রামের সৈকতের!

Spread the love

ফিরোজ জোয়ার্দ্দার-ঃ

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় পরিবারের সাথে ঈদের আনন্দ ও পবিত্র ঈদ- উল- ফিতরের নামাজ আদায় করা হলো না ঢাকা কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের মেধাবী ছাত্র শাহরিয়ার সৈকতের (২০)।

সে কলারোয়া উপজেলার লাঙ্গলঝাড়া গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে।

(বুধবার ৫ ই জুন) ঈদের দিন সকাল ৭ টার দিকে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা নারীর টানে সাতক্ষীরা গামী একে ট্রাভেল পরিবহন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফরিদপুর সদর উপজেলার ধুলদী রেলগেট এলাকায় খাদে পড়ে মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় ছয় যাত্রী নিহত হওয়ার মধ্যে সৈকতও নিহত হয়।

নিহত সৈকতের সাথে থাকা একই গ্রামের আরেক বন্ধু শাওন গুরুত্ব আহত হয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

এসময় ওই পরিবহনে থাকা আরো ৩০ জনের মতো যাত্রী আহত হয় বলে জানা যায়।

নিহত সৈকতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, পবিত্র ঈদ- উল- ফিতরের নামাজ ও
ঈদ উৎযাপনের জন্য ঢাকা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন নিহত সৈকত ও তার বন্ধু আহত শাওন।

সহপাঠিরাসহ পরিবারের লোকজন অধীর অপেক্ষায় দু’জনের পথ চেয়ে বসে আছে কখন আসবে তারা।

কিন্তু আর কোনদিন ফিরবে না সৈকত।

ফরিদপুরে মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় বাড়ি ফিরে আসেন সৈকতের লাশ।

আহত অবস্থায় আছেন তাদের আরেক বন্ধু শাওন।

শাহরিয়ার সৈকতের অকাল মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না লাঙ্গলঝাড়াবাসী।

মেধাবী ছাত্র সৈকতের মৃত্যুর খবর মুহূর্তের মধ্যে এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে তা শোকে পরিণত হয়।

মৃত্যুের খবর শুনে দূর্ঘটনাস্থলে ছুটে যান লাঙ্গলঝাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মাস্টার নূরুল ইসলামসহ নিহত- আহতের পরিবারের লোকজন।

লাশ শনাক্ত করে গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসার প্রস্তুুতি চলছে বলে জনালেন ইউপি চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *