শিরোনাম

নওগাঁয় বাল্যবিয়ে থেকে কাজীর পলায়ন : মটরসাইকেল জব্দ; জরিমানা আদায়!

Spread the love

ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ, নওগাঁ প্রতিনিধি:
নওগাঁর রাণীনগরে একই দিনে দুইটি বাল্য বিবাহ পন্ড করে দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল মামুন। এই ঘটনায় ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করে মেয়ের পিতার জরিমানা করা হয়েছে। এদিকে নির্বাহী কর্মকর্তার যাওয়ার খবর পেয়ে কাজী (নিকাহ রেজিষ্ট্রার) পালিয়ে গেছে বলে জানা গেছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গোনা ইউনিয়নের বেতগাড়ী বাজারের জনৈক আরিফুজ্জামানের মেয়ে আরিফা আক্তারের সাথে নাটোর জেলার আয়েজ উদ্দীনের ছেলে তুহিনের বিয়ে ঠিক হয়। বিয়ের দিনক্ষণ অনুযায়ী গত বুধবার বরযাত্রীসহ তুহিন বিয়ে করতে কনের বাড়ীতে আসে এবং ইসলামী শরীহ মোতাবেক মৌলভী দ্বারা বিয়ের কবুল পরায়।

বাল্যবিবাহ অনুষ্ঠিত হওয়ার খবর পেয়ে রাণীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল-মামুন বিয়ে বাড়ীতে উপস্থিত হন। অবস্থা বেগতিক দেখে মেয়ের বাবা-মা, বরযাত্রী ও কাজী আইয়ুব আলী পালিয়ে যায়।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে মেয়ের বাবাকে ডেকে এনে মেয়ের বাল্য বিবাহ দেওয়ার অপরাধে মেয়ের বাবার ২০ হাজার টাকা এবং বিয়ের ঘটনাস্থলে একটি মটরসাইকেলের কাগজপত্র না থাকায় ২০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। অপরদিকে, একই দিনে উপজেলার রাতোয়াল গ্রামে একটি বাল্য বিয়ের হচ্ছে মর্মে খবর পেলে নির্বাহী কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে গিয়ে বিয়েসহ বিয়ের অনুষ্ঠানটি পন্ড করে দেন। তবে এখানে কারো জরিমানা করা হয়নি।

নিকাহ রেজিষ্ট্রার কাজী আইয়ুব আলী বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার যাওয়ার আগেই মেয়ের বিয়ের বয়স না হওয়ায় বিয়ে রেজিষ্ট্রি না করে চলে আসি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল-মামুন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে ভ্রাম্যমান অভিযান আদালত পরিচালনা করে বাল্য বিয়ের আয়োজন বন্ধসহ ঘটনাস্থলে পাওয়া একটি মটরসাইকেল জব্দ করা হয় এবং নগদ জরিমানা আদায় করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *