শিরোনাম

ইউএনও’র স্বেচ্ছাসেবক পরিচয়ে বাড়ি লকডাউনের ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজিঃ থানায় অভিযোগ!!

উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিবেদক নড়াইলঃ    নড়াইলের পল্লীতে ইউএনও’র স্বেচ্ছাসেবক পরিচয়ে বাড়ি লকডাউনের ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ পাওয়া গেছে। নড়াইলের কালিয়ায় উপজেলার বাগুডাঙ্গা গ্রামের এ ঘটনা ঘটেছে। ভুক্তভোগী রেজাউল সরদার বুধবার উপজেলার নড়াগাতি থানায় ৫ জনের নামে লিখিত অভিযোগ করেছেন। উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিবেদক নড়াইল জানান,  অভিযোগের বিবরণ থেকে জানা গেছে, উপজেলার বাগুডাঙ্গা গ্রামের রেজাউল সরদার ঢাকার একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে গাড়িচালকের চাকরি করেন। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর গত ২৪ মার্চ তিনি গ্রামের বাড়িতে চলে আসেন। এরপর উপজেলার বাগুডাঙ্গা গ্রামের মৃত কওছার শেখের ছেলে সাজিদুল ইসলাম শোভন, কলাবাড়িয়া গ্রামের ইখলাছ সরদারের ছেলে রিয়াজ ও ডুমুরিয়া গ্রামের ফেলু শেখের ছেলে পারভেজ শেখসহ আরও ২ জন গত ১০ এপ্রিল তার বাড়িতে যান। এ সময় তারা নিজেদের কালিয়ার ইউএনও’র স্বেচ্ছাসেবক পরিচয় দিয়ে ঢাকা থেকে আসার কারণে রেজাউলের বাড়ি প্রশাসনের মাধ্যমে লকডাউন করার হুমকি দেয় এবং লকডাউন এড়াতে হলে ১০ হাজার টাকা দিতে হবে বলে জানায়। এ সময় রেজাউল ভয়ে তাদের ২ হাজার টাকা দেয়। বাকি ৮ হাজার টাকা না পেয়ে তারা রেজাউলের বিরুদ্ধে কালিয়া ইউএনও অফিসে মিথ্যা অভিযোগ দেয়। এরপর গত ১২ এপ্রিল রাত ৮টার দিকে কালিয়ার ইউএনও নাজমুল হুদা ওই বাড়িতে গেলে রেজাউল তার কাছে পুরো ঘটনা খুলে বলেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সাজিদুল ইসলাম শোভন বলেন, ‘রেজাউলকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা বলা হয়েছে। কোনো চাঁদা নেওয়া বা দাবি করা হয়নি। এ অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। নড়াইলের নড়াগাতি থানার ওসি রোখসানা খানম বলেন, ‘অভিযোগটি পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত চলছে। সত্যতা পেলে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *