শিরোনাম

উখিয়ার বালুখালীতে সরকার স্বীকৃত এক কৃষককে হয়রানীর অপচেষ্টা!

Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদক, উখিয়া,কক্সবাজার:
কক্সবাজারের উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের প্রান্তিক কৃষক বাদশা মিয়াকে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে হয়রানীর অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
ভুক্তভোগী পরিবারের কর্তা বালুখালী শিয়ালিয়া পাড়ার মৃত ছৈয়দ আলমের ছেলে বাদশা মিয়া অভিযোগ করে জানান,এক সময় গাড়ী চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতাম।উপার্জিত আয় দিয়ে সংসারে কুলিয়ে উঠতে পারছিলেন না। নিজের সংসারের ঘানি টানতে চাষাবাদে ঝুকেঁ পড়েন।মায়ের পৈতৃকসম্পত্তি থেকে প্রাপ্ত অংশসহ অন্যদের নিকট থেকে বর্গা জমি নিয়ে চাষ করে উপজেলা পর্যায়ে তিনি সরকারী স্বীকৃত একজন কৃষকে পরিনত হন।তাঁর চাষাবাদে সন্তোষ্ট
হয়ে উখিয়া উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর থেকে পর্যায়ক্রমে ৩ টি ট্রাক্টর, ২টি ধান ভাংগার মেশিন,৩ টি স্প্রে মেশিন,১০ টি পাইপ প্রদান করেছে।যেগুলো দিয়ে সে চাষাবাদ করে একজন সফল কৃষকে পরিনত হন।বর্তমানে তাঁর অন্তত ৫ একর জমিতে চাষাবাদ এবং প্রদর্শনী  বাস্তবায়ন চাষাবাদ করা হয়েছে।যার উত্থান সহ্য করতে পারছেনা একটি স্বার্থানেষী মহল।

ওই স্বার্থানেষী মহলের সাথে মায়ের পৈতৃকসম্পত্তি নিয়ে বিরোধ থাকায় মিথ্যা তথ্য সৃজন করে “আলোকিত উখিয়া”নামক একটি পত্রিকায় বাদশা মিয়ার নামে মিথ্যা বানোয়াট সংবাদ পরিবেশন করে প্রশাসনের কাছে ঘায়েঁল
ও এলাকাবাসির কাছে হেয় করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।তাকে ওই পত্রিকায় ইয়াবা ব্যবসায়ী, নারী পাচারকারী, রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আল ইয়াকিন সন্ত্রাসীদের সাথে সখ্যতা, আত্নীয় স্বজনদের মাধ্যমে ইয়াবা পাচার সহ বহুমুখী অপকর্মের সাথে জড়িত রয়েছেন মর্মে প্রকাশ করছে।যা মিথ্যা বানোয়াট, ভিত্তিহীন বলে অখ্যায়িত করেছেন স্থানীয়রা।ছাত্রলীগ নেতা আলমগীর চৌধুরী নিসা বলেছেন,বাদশা মিয়া কৃষির উপর নির্ভরশীল একজন নিরীহ মানুষ।জায়গা-জমি বিষয়ে তাকে স্থানীয় প্রভাবশালী এক ব্যক্তি মিথ্যা অপবাদ দিয়ে প্রশাসনের নিকট ঘাঁয়েল করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।নিসা বলেন বাদশা একজন ভাল কৃষক।তাঁর উপর মানসিক নির্যাতন করা হচ্ছে।বাদশা মিয়া জানান,আমি কোন দিন এসব হারামী এবং অবৈধ কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলাম না।বর্তমানেও নাই।আমার মায়ের পৈতৃকসম্পত্তির ভাগবাটোয়ারা এবং জমি বিরোধে অন্য একটি প্রভাবশালী ব্যক্তির ষড়যন্ত্রের শিকার হতে চলেছি।তিনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সত্যতা পূর্বক সহায়তা চেয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *