শিরোনাম

র‍্যাগিং অভিযোগে নিটারের ৭ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

Spread the love
 ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রযুক্তি অনুষদের অধিভুক্ত একটি প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড রিসার্চ (নিটার)। সাভারে অবস্থিত এই প্রতিষ্ঠানের ৭ জন শিক্ষার্থীকে র‍্যাগিং অভিযোগে প্রতিষ্ঠান থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
গত ২রা ফেব্রুয়ারি থেকে প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু হয় আর সেদিন থেকেই শুরু হয় নিটারের ২য় বর্ষের ছাত্র-ছাত্রী দ্বারা র‍্যাগিং নামক জগন্য কাজ। এরপর কোনো কোনো রাতে বিভিন্ন জন কে বিভিন্ন ভাবে হলে ঢেকে নিয়ে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়েছে। এরা দূরদূরান্ত থেকে আশার কারনে ভয়ে শিক্ষকদের কাছে মুখ খুলতে পারে নি। দু একজন মুখ খুললেও তাদের মুখ আবার বন্ধ করা হয়েছে নানা রকম ভয় দেখিয়ে। এরপর গত ১৬ই জুন রবিবার এক রাতে শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয় ১৩ জন শিক্ষার্থী। এক শিক্ষার্থী জানান, তাকে ফ্লাট থেকে তুলে হলে নিয়ে বিভিন্ন জন বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন  তাকে। বাকিদেরও একই অবস্থা করে৷ প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা আড়ালে মুখ খুললেও সিনিয়রদের ভয়ে সামনাসামনি কিছু বলতে সাহস পাচ্ছে না।
এরপর লিখিত ভাবে ও মেইল এর মাধ্যমে একাধিক শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের অভিযোগের ফলে নিটারের প্রশাসন তদন্ত কমিটি গঠন করে।উক্ত তদন্ত কমিটি দোষীদের চিহ্নিত করে এবং আজ রোজ রোববার জরুরী মিটিং এর করে তাদের বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়। বহিষ্কৃতরা বলেন মৃণ্ময় বসাক (৩ বছর), আব্দুর হালিম (২ বছর), সালাউদ্দিন আহমেদ (২বছর), জাহিদ হাসান সাগর (২ বছর), রেজাউল কবীর (২ বছর), তালাল আল নাহিয়ান (২বছর), সাকিব ইবনে রাকিব (২ বছর)।
তদন্তে জানা যায় যে তারা হলে ঢেকে এনে লোহার রড পাইপ দ্বারা প্রহার, চর থাপ্পড় মেরে ছাত্রদের জখম করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *