শিরোনাম

রিয়াদ’র অক্লান্ত পরিশ্রমে এগিয়ে যাচ্ছে ঘুমধুম ইউনিয়ন মৎস্য কর্যক্রম

Spread the love

এন এম সিকদার, (নাইক্ষ‌্যংছড়ি) বান্দরবান: পার্বত্য বন্দরবান জেলা নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলাধীন ঘুমধুম ইউনিয়নে মৎস্য সম্পসারণ কর্মী(লীফ) মোঃআবদিল্লাহ (রিয়াদ) এর অক্লান্ত পরিশ্রমে,মৎস্য চাষে পিছিয়ে থাকা পার্বত্য অঞ্চল ,ঘুমধুম ইউনিয়ন মৎস্য চাষ অনেক টা এগিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ঘুমধুম সিআইজি মৎস্য সমাবায় সমিতি (রেজিনং ০০২)এর সভাপতি খাইরুল আমিন এবং সাধারণ সম্পাদক জাফর আলম। এবং ঘুমধুম সিআইজি মৎস্য সমবায় সমিতি(রেজি নং-০০১)এর সভাপতি আলী আহমদ জানান ঘুমধুম মৎস্য সম্পসারণ কর্মী আবদুল্লাহ এর অক্লান্ত পরিশ্রমে আমরা সিআইজি সমিতির সদস্যরা সবাই মৎস্য চাষ করতে আগ্রহি হয়েছি এবং আমার সমিতির সদস্যরা মৎস্য চাষ করে অনেকটা লাভবান হয়েছি,।আমাদের মৎস্য চাষ দেখে আমাদে পাশাপাশি অনেক এলাকা বাসিও মৎস্য চাষের প্রয়োজনিয়তা জানতে পেরে মৎস্য চাষ করতে আগ্রহি হয়ে উঠেছে এবং ইতি মধ্যে অনেকে মৎস্য চাষ শুরু করেছে।
এই ব্যপারে ঘুমধুম মৎস্য সম্পসার কর্মী মোঃআবদুল্লহ(রিয়াদ) এর বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তরের নির্দেশ পেয়ে আমি ঘুমধুম ইউনিয়েনে কাজ শুরু করি,,এবং নাইক্ষ্যংছড়ি মৎস্য অধিদপ্তের সহায়তায় প্রতি ইউনিয়ের মতো ঘুমধুম ইউনিয়েও দুইটি, সিআইজি মৎস্য সমিতি গঠন করি।প্রতিটি সদস্যকে মৎস্য চাষের প্রয়োজনিয়তা সম্পর্কে জানাই,,এবং তাদেরকে আগ্রহি করে তুলি।বর্তমানে উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তর একটি সমিতিতে ৩টা করে প্রদর্শনি পুকুর করে দিয়েছে,বলে জানান।
তিনি আরো বলেন ঘুমধুম ইউনিয়নের অনেকের মৎস্য চাষের আগ্রহ থাকলেও পুজির অভাবে মৎস্য চাষ করতে পরছেনা যদি চাষিদেরকে মৎস্য বা যে কোনো অধিদপ্তর থেকে সল্প সুদে কিছু অর্থ লোন দেওয়া হয় তাহলে ঘুমধুম ইউনিয়নের মৎস্য চাষিরা আরো মৎস্য চাষ করে আরো সর্বলম্বী হত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *