শিরোনাম

মোংলা সমুদ্র বন্দর দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। 

Spread the love
মোঃ হাফিজুর রহমান  ,মোংলা প্রতিনিধি :
দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম সমুদ্র বন্দর মোংলা দেশের অর্থনীতিতে পালন করছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। নির্মাণাধীন পদ্মা সেতুর কারণে মোংলা বন্দরকেন্দ্রিক দেশের শিল্প-বাণিজ্যের অমিত সম্ভাবনার যে নতুন দিগন্ত সূচিত হতে চলেছে, তারই প্রেক্ষিতে সরকার এই বন্দরকে ঘিরে গ্রহণ করেছে দীর্ঘমেয়াদি উন্নয়ন পরিকল্পনা।
বন্দরের কর্মদক্ষতা বাড়ানোর লক্ষ্যে স্থাপিত হয়েছে দুটি স্ট্রাডেল ক্যারিয়ার, ছয়টি ফর্কলিফট ট্রাক, দুটি টার্মিনাল ট্রাক্টর ও দুটি কন্টেইনার ট্রেইলর। চ্যানেলের নাব্যতা/গভীরতা ৫.৫ মিটার থেকে ৭.৫ মিটার পর্যন্ত বৃদ্ধির জন্য ১৪ কিলোমিটার এলাকায় ক্যাপিটাল ড্রেজিং সম্পন্ন করা হয়েছে। মালবাহী জাহাজের নিরাপদ যাতায়াতের জন্য ৬২টি বিভিন্ন ধরনের লাইটেড বয়া, দু’টি রোটেটিং বীকন এবং ছয়টি জিআরপি লাইট টাওয়ার ও আনুষাঙ্গিক যন্ত্রপাতি সংগ্রহ করে মোংলা বন্দরের পশুর চ্যানেলে স্থাপন করা হয়েছে।

পশুর চ্যানেলের ক্যাপিটাল ড্রেজিং এর অর্জিত সাফল্য ধরে রাখা এবং নাব্যতা সংরক্ষণের জন্য নিয়মিত ড্রেজিং কার্য পরিচালনার লক্ষ্যে একটি ক্রেন বোট, একটি হাউজ বোট, পাইপ, ফ্লোটার পাইপসহ একটি কাটার সাকশান ড্রেজার সংগ্রহ করা হয়েছে। মোংলা বন্দর হতে হিরণপয়েন্ট পর্যন্ত পাইলট আনা-নেয়ার জন্য একটি পাইলট বোট ও একটি পাইলট ডেসপাচ বোট সংগ্রহ করা হয়েছে।
এছাড়াও যানবাহন চলাচলে অনুপযোগী প্রায় ১০ কিলোমিটার প্রধান সড়ক ও বাইপাস সড়ক মেরামত ও উন্নয়ন, বন্দরের মাধ্যমে আমদানিকৃত গাড়ি রাখার জন্য সংযোগ সড়কসহ দুটি ইয়ার্ড নির্মাণ, বন্দরের বিভিন্ন স্থাপনায় ৮০ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ও বিতরণের জন্য সৌর প্যানেল স্থাপন করা হয়েছে।
বন্দরের আধুনিকায়নের লক্ষ্যে চীনের সাথে প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে যেখানে একটি অত্যাধুনিক কনটেইনার টার্মিনাল নির্মাণসহ আছে চার লাখ কনটেইনার ধারন ক্ষমতা সম্পন্ন ১টি কনটেইনার ইয়ার্ড নির্মানের প্রকল্প ।
বর্তমান সরকারের সাহসী ও সময়পোযোগী পদক্ষেপে ঘুরে যাচ্ছে দেশের অর্থনীতির চাকা । এমন অগ্রযাত্রা চলতে থাকলে দেশ অল্প সময়ের মধ্যেই পোঁছে যাবে সাফল্যের বন্দরে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *