শিরোনাম

ভুরুঙ্গামারীতে ভিজিডি’র পঁচা চাল বিতরন

Spread the love

ভুরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে ২০১৯-২০ চক্রের ভিজিডি কর্মসূচীর আওতায় উপকারভোগীদের মাঝে পঁচা চাল বিতরনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
রোববার উপজেলার তিলাই ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে দুঃস্থ মহিলা উন্নয়ন (ভিজিডি) কর্মসুচীর আওতায় ২০১৯-২০ চক্রের উপকারভোগীদের মাঝে ৫ মাসের ৫ বস্তা (১৫০ কেজি) করে চাল বিতরন করেন ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল হক শাহীন শিকদার। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বিতরনকৃত ৫ বস্তা চালের মধ্যে ১-২ বস্তা চাল পঁচা যা খাওয়ার অনুপোযোগী।
উপকারভোগী তিলাই ইউপির ৫নং ওয়ার্ডের আছমা ৫ বস্তা চাল উত্তোলন করে সেখানে ২ বস্তা (৬০কেজি) চাল পঁচা হওয়ায় চেয়ারম্যানকে জানালে তিনি চাল পরিবর্তনে অস্বীকৃতি জানান। পরে ট্যাগ অফিসার উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জিন্নাত আরা ইয়াছমিনকে জানানো হয়। তিনি কোন পদক্ষেপ গ্রহন না করেই চাল বিতরন অব্যাহত রাখেন। এতে দেখা যায় প্রতি উপকারভোগীকে ১-২ বস্তা করে খাওয়ার অনুপোযোগী পঁচা চাল বিতরন করা হলে সেখানে উপস্থিত স্থানীয় জনসাধারন এর তীব্র প্রতিবাদ জানালেও উক্ত চেয়ারম্যান ও কর্মকর্তা কোন কর্নপাত করেন নি।
ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল হক শাহীন শিকদার বলেন, চাল গোডাউনে থাকার কারনে পঁচে গেছে। আমার কিছু করার নাই।
এ ব্যাপারে ট্যাগ অফিসার ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জিন্নাত আরা ইয়াছমিন কোন কথা বলতে রাজি হননি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এইচ এম মাগফুরুল হাসান আব্বাসীর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, চাল বিতরনে দু‘জন অফিসার দেয়া হয়েছে। পঁচা চাল বিতরন কেন হবে ? বিষয়টি আমি দেখছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *