শিরোনাম

বাবুগঞ্জ আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন॥ তৃণমূল নেতাকর্মীদের চাওয়ার প্রতিফলন ঘটবে কি?

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি॥ সকল নাটকিয়তার অবসান ঘটিয়ে ১২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বরিশালের গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা বাবুগঞ্জ আওয়ামীরীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। উপজেলার সকল রাজনৈতিক নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ জনগনের দৃষ্টি এখন আসছে নতুন কমিটির সর্বোচ্চ পদে কারা ঠাই পাচ্ছে। বিশেষ করে সভাপতি ও সাধারণ পদ নিয়ে চলচ্ছে চুল ছেড়া বিশ্লেষন। সভাপতি পদ প্রত্যাশী বর্তমান সভাপতি কাজী ইমদাদুল হক দুলাল ও সাধারণ সম্পাদক এস এম খালেদ হোসেন স্বপন অনুসারিদের প্রচারণায় ইতিমধ্যে সরব হয়ে উঠছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও পথে পথে শোভা পাচ্ছে ব্যানার ফেস্টুন। সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশিরা হলেন বর্তমান কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল চিশতি ,সাংগঠনিক সম্পাদক মৃধা মুহাঃ আক্তার উজ জামান মিলন, এ্যাড.সামসুজ্জামান সোহেল, ভাইস চেয়ারম্যন ইকবাল আহম্মেদ আজাদ , মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারজানা বিণতে ওহাব। তবে মাজার ব্যপার হচ্ছে এরা সবাই রাজনৈতিক অভিভাবক জেলা আওয়ামীলীগের সাভাপতি আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর অনুসারি দাবি করে লবিং তদ্বির চালাচ্ছে।
এদিকে উপজেলা জুরে একটাই গুঞ্জণ চলছে তৃণমূল নেতাকর্মীদের চাওয়ার প্রতিপলন ঘটবে কি?
এমন প্রশ্নের সরাসরি সদ্বত্তর না মিললেও অনেকেই বলেছেন আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ’র সিধান্তই চুড়ান্ত! এ ক্ষেত্রে তিনি নেতৃত্ব ঠিক করে দিতে পারেন, চাইলে কাউন্সিলের মাধ্যমে নেতৃত্ব ঠিক করতে পারেন। তবে তৃণমূল নেতাকর্মীদের চাওয়া রাজনৈতিক অভিভাবক কাউন্সিলের মাধ্যমে কর্মীদের মূল্যায়ন করবে।
তৃণমূলে খোজ নিয়ে দেখা গেছে উপজেলার ৬ টি ইউনিয়নের মধ্যে ৫ টি ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ অধিকাংশ নেতাকর্মীরাই নতুন কমিটিতে সভাপতি পদে দেখতে চায় বর্তমান সাধারণ সম্পাদক এসএম খালেদ হোসেন স্বপনকে ও সাধারণ সম্পাদক পদে দেখতে চায় বর্তমান কমিটির যুগ্ম সম্পাদক মোস্তফা কামাল চিশতিকে। এমনটাই জানা গেছে সম্মেলন কে কেন্দ্র করে সাটানো ব্যানার, ফেস্টুন,তোড়ন ও বিলবোর্ডের মাধ্যমে।
প্রশ্ন হল কে হচ্ছে নতুন কমিটির সভাপতি,সম্পাদক ? রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে সম্মেলণ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে এমন প্রশ্নের উত্তর পেতে। সর্বপরি সম্মেলনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যে সকল ধরনের প্রস্ততি শেষ করেছে উপজেলা আওয়ামীলীগ। উপজেলার প্রতিটি রাস্তায় ব্যানার, ফেস্টুন,তোড়ন ও বিলবোর্ডে সাজসাজ রব লক্ষ করা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *