শিরোনাম

নবীগঞ্জে বাস-সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল শিক্ষার্থীর, ঘাতক বাস আটক

Spread the love

মোঃ সুমন আলী খাঁন, নবীগঞ্জ থেকে: নবীগঞ্জ-আউশকান্দি সড়কের বাজকাশারা এলাকায় বেপরোয়া বাস ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তন্ময় বৈষ্ণ (৮) নামে এক দ্বিতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থীর। এঘটনায় ঘাতক বাসকে আটক করেছে পুলিশ। আজ শনিবার দুপুর ১২টার দিকে নবীগঞ্জ-আউশকান্দি সড়কের কুর্শি ইউনিয়নের বাজকাশারা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তন্ময় বৈষ্ণ (৮) সোনার বাংলা মডেল হাইস্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র এবং সে বাউসা ইউনিয়নের বাউসা গ্রামের সুমিত বৈষ্ণ একমাত্র পুত্র। সুমিত বৈষ্ণ বাংলবাজার মাষ্টার ব্রিক ফিল্ডের ম্যানাজার হিসাবে কর্মরত। স্থানীয় ও নিহত তন্ময়ের পরিবার সূত্রে জানা যায়, উল্লেখিত সময় সিএনজি যোগে নবীগঞ্জ থেকে বাংলা বাজার ফিরছিলেন বাংলা বাজার মাষ্টার ব্রিক ফিল্ডের ম্যানাজার সুমিত বৈষ্ণর স্ত্রী ও পুত্র তন্ময় বৈষ্ণ। পথিমধ্যে নবীগঞ্জ-আউশকান্দি সড়কের কুর্শি ইউনিয়নের বাজকাশারা এলাকায় পৌছাঁমাত্রই শেরপুর থেকে নবীগঞ্জগামী বেপরোয়া দ্রুত গতি যাত্রীবাহী বাস সিলেট মেট্রো (ব- ১১-০০৭৫) অপর একটি গাড়িকে ওভারটেকিং করার সময় তন্ময়কে বহনকারী সিএনজিকে মারাত্মকভাবে ধাক্কা দেয়। এসময় সিএনজিটি ধুমড়ে মুচড়ে যায়। তখন সিএনজি থেকে ছিটকে পড়ে তন্ময়। এসময় তন্ময়ের মা ও স্থানীয় লোকজন তন্ময়কে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তন্ময়কে মৃত ঘোষণা করেন। এসময় তন্ময়ের মায়ের কান্নায় হাসপাতাল এলাকার আশপাশ ভারি হয়ে উঠে। খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার এসআই কাওছার হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ঘাতক বাসকে আটক করেন। এসময় বাস চালক ও তার সহকারী পালিয়ে যায়। নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইকবাল হোসেন নিহতের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন- ঘাতক বাসকে আটক করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *