শিরোনাম

নবীগঞ্জে বাইসাইকেল ভাড়া দিয়ে চলছে কুতুব উদ্দিনের সংসার

Spread the love

মোঃ সুমন আলী খাঁন, নবীগঞ্জ ॥ বাইসাইকেল ভাড়া দিয়ে চলছে নবীগঞ্জের কুতুবের সংসার। তিনি প্রায় দুই যুগ আগ থেকে বাইসাইকেল মেরামত করে আসছিলেন। তারপর একে একে ২০টি সাইকেল কিনে বর্তমানে তিনি ভাড়া দিয়ে গ্রামের প্রায় ৩ হাজার যুবককে বাইসাইকেল চালানো শিখিয়েছেন। বাইসাইকেল চালানো শিখিয়ে তিনি মাসে ১০ হাজারের বেশি রোজগার করে আসছেন। যা দিয়ে চলছে তার সংসার। তিনি হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের মাইজগাঁও গ্রামের মৃত শাহ মোঃ মুমিন উল্লার পুত্র। তার পুরো নাম শাহ মোঃ কুতুব উদ্দিন (৫৫)। এলাকায় তিনি কুতুব নামেই পরিচিত।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, তিনি আজ থেকে প্রায় দুই যুগ পূর্বে নবীগঞ্জ বাজারে রিক্সা মেরামতের কাজ করতেন। পরে তিনি নবীগঞ্জ বাজারে থেকে মেরামতের কাজ ছেড়ে দেন। গত পাঁচ বছর পূর্বে নিজ এলাকার নবীগঞ্জ-রুদ্রগ্রাম সড়কের বাউসা পয়েন্টে একটি দোকান ঘর ছয়শ টাকায় ভাড়া নিয়ে বিশটি বাইসাইকেল সংরক্ষন করে এলাকার যুবকসহ বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার লোকজনদের কাছে ভাড়া দিচ্ছেন। প্রতি ঘন্টার জন্য নিচ্ছেন পনের টাকা। সারাদিনের জন্য ভাড়া দিচ্ছেন পঞ্চাশ টাকার বিনিময়ে। ওই এলাকার বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার লোকজনদের কাছে আলাপকালে তারা জানান- কুতুব যে কাজ করছেন তা অত্যান্ত ভাল। তার কাছ থেকে সাইকেল ভাড়া নিয়ে প্রায় দুই থেকে তিন হাজার লোক বাইসাইকেল চালানো শিখেছেন। প্রতিনিধির সাথে আলাপকালে শাহ মোঃ কুতুব উদ্দিন জানান, বাইসাইকেল ভাড়া দিয়ে তার সংসার চালাচ্ছেন। দুই কন্যা সন্তান ও স্ত্রী নিয়ে তার ৪ সদস্যের পরিবার। দুই কন্যাকে বিয়ে দিয়েছেন। বর্তমানে তার পরিবারে তারা স্বামী-স্ত্রী দুইজন। ওই এলাকার ইমামবাঐ গ্রামের মোঃ আব্দুল মালিক (৬৫) জানান- কুতুব বাইসাইকেল ভাড়া দিয়ে এলাকার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের অনেক উপকার করেছেন। তার কাছ থেকে এক ঘন্টার জন্য পনের টাকায় সাইকেল ভাড়া নিয়ে অনেক জায়গায় ঘুরে আসা সম্ভব হয়েছে। যেখানে পঞ্চাশ থেকে ষাট টাকার প্রয়োজন ছিলো। ওই স্থানে এক ঘন্টার জন্য পনের টাকায় ভাড়ায় নিয়ে প্রয়োজন মেঠানো সম্ভব হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *