ঘুমধুম স্টুডেন্ট ক্লাব আয়োজিত ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় বক্তারা-মাদক নির্মূলে সমবেত হই

 

নিজস্ব প্রতিবেদক,উখিয়া,কক্সবাজারঃ

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম স্টুডেন্ট ক্লাব আয়োজিত ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২১’র ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১১ সেপ্টেম্বর বিকেলে বাংলাদেশ-মিয়ানমার মৈত্রী সড়কের পূর্ব পাশে ঘুমধুম মাঠে উক্ত খেলায় যুগ-জুড়ান্ত বনাম সীমান্ত কিশোর দলের মধ্যে তীব্র প্রতিদন্ধিতায় খেলা চলে।নির্ধারিত সময়ে কোন দল জয়ের মুখ দেখেনি।ফলে ট্রাইবেকারে ৩-২ গোলে সীমান্ত কিশোর দল জয়লাভ করে।

ঘুমধুম ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ঘুমধুম ক্রীড়া পরিষদের স্থায়ী সদস্য নুর হোসেন শিকদারের সভাপতিত্বে খেলার উদ্ধোধন ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে
খেলার শুভ উদ্ধোধক ছিলেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ন-আহবায়ক শাহনেওয়াজ চৌধুরী। প্রধান অতিথি ছিলেন ঘুমধুম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মোঃদেলোয়ার হোসেন এর প্রতিনিধি এসআই আমিন।ফুটবল লিগ-২০২১’র প্রধান পৃষ্টপোষক ঘুমধুম ইউনিয়ন আওয়ামীগের সভাপতি আলহাজ্ব খালেদ সরওয়ার হারেজ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন উখিয়া প্রেসক্লাবের সদস্য সাংবাদিক শ.ম.গফুর,ঘুমধুম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই শাহাব উদ্দিন,ঘুমধুমের সাবেক খেলোয়াড় মাষ্টার মোঃইউনুস,সাবেক খেলোয়াড় কামরুল হাসান শিমুল,ঘুমধুম ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি আলী আকবর,বালুখালীর কৃতি খেলোয়াড় নুরুল আবসার
সাজু প্রমুখ।খেলায় অতিথিরা বিজয়ী, বিজিত ও সেরা খেলোয়াড়দের পুরস্কার তুলে দেন।ধারা ভাষ্যকার ছিলেন নুর হোসেন।৩ জন রেফারী সুশৃংখল পরিবেশে খেলা পরিচালনায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখায় তাদেরও পুরস্কৃত করা হয়।

খেলার উদ্ধোধন ও পুরস্কার বিতরণ কালে অতিথিদের সংক্ষিপ্ত আলোচনায় মাদকের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে খেলার প্রয়োজন রয়েছে।মাদক থেকে বিরত থাকতে খেলাধুলায় মনোনিবেশ করতে হবে।মাদকের ভয়াল থাবা সীমান্ত এলাকা ঘুমধুমে প্রবেশ করেছে বহু আগেই।আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যথাসাধ্য মাদক জব্দ করেছে।পাচারে জড়িত অনেকেই আইনের আওতায় এসেছে।
এখনো বহু মাদক কারবারি কারান্তরীন আছে।মাদকের আগ্রাসন থেকে ছাত্র-যুব সমাজ কে রক্ষা করতে হবে।এর জন্য প্র‍য়োজন সম্মিলিত প্রচেষ্টা। খেলাধুলায় একমাত্র সম্মিলন।যেখানে সকলের অংশ গ্রহণে মাদক থেকে দূরে থাকা যাবে।তাই ঘুমধুমের মাটিতে নিয়মিত খেলাধুলা চর্চা করা হউক।ঘুমধুম থেকেই জাতীয় মানের খেলোয়াড় সৃষ্টিতে আমরা দলমত নির্বিশেষে এক কাতারে একই পতাকায় সমবেত হই।মাদক নির্মূলে সহায়ক প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখি।

এসময় ঘুমধুম ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মো.সোহেল রানা,মাষ্টার ছৈয়দুর রহমান হীরা,যুবনেতা শাহ জালাল,ছাত্রলীগ নেতা কামরুল ইসলাম সোহেল,মামুন,আমিন সহ ঘুমধুম ক্রীড়া পরিষদ নেতৃবৃন্দ,ঘুমধুম স্টুডেন্ট ক্লাব নেতৃবৃন্দ প্রমুখসহ বিভিন্ন শ্রেনীপেশার ক্রীড়াপ্রেমি ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More