ঘুমধুমে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলাঃ থানায় অভিযোগ দায়ের…

 

নিজস্ব প্রতিবেদকঃউখিয়া,কক্সবাজারঃ

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুমে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডারের বাড়ীর জায়গাও পুকুর দখলে নিতে পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে দূর্বৃত্তের বিরুদ্ধে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও থানায় দায়ের করা অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে,দীর্ঘদিন ধরে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার নুরুল ইসলামের বাড়ি,পুকুর ও জায়গার উপর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে ছোট ভাই ছৈয়দ নুর ও ভাতিজা নুরুল অাবছারের। ইতিপূর্বে তারা দলবল নিয়ে কয়েকবার হামলাও করে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর।

ধারাবাহিকতায় গত ১৯ মে সকাল সাড়ে ৯টার সময় মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে প্রাপ্ত সরকারি বাড়িটি দখলে নিতে দেশীয় অস্ত্রসজ্জিত দলবল নিয়ে ঘেরাবেড়া কাটতে থাকে সহোদর ভাই ছৈয়দ নুর। নুরুল ইসলামের ছেলে মনিরুল ইসলাম তাদেরকে অবৈধ দখলে বাঁধা দিতে গেলে নুরুল অাবছার,শহিদুল ইসলাম,জাহাঙ্গীর অালম,সাহাব উদ্দিন, ফাহাদ বিন,ছৈয়দ নুর,হালিমা বেগম সংঘবদ্ধ হয়ে এলোপাতাড়ি হামলা করে পিঠে, হাতে, বুকে, মাথায় মনিরকে মারাত্মকভাবে জখম করে।

অাহত মনিরকে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসলে চাচাত ভাই তহিদুল ইসলামকেও চুরিকাঘাত করে তারা। প্রত্যক্ষদর্শী ও পথচারীরা অাহতদের উদ্ধার করে উখিয়া হাসপাতালে প্রেরণ করে।

জায়গা-দখল ও হামলার ব্যাপারে অভিযুক্ত নুরুল অাবছারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার চাচা হাঁটা-চলার পথের সংস্কারে বাঁধা দেওয়ায় মনির উল্টো হামলা করেছে বলে জানান।

গুরুতর আহত মনিরুল ইসলামের পিতা মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে হামলায় নেতৃত্বদানকারী নুরুল অাবছারকে প্রধান অাসামী করে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে জানান।নাইক্ষ্যংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন জানান,লিখিত অভিযোগ পেয়েছি,তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মতামত দিন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More