গোবিন্দগঞ্জে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময়

এনবি নিউজ একাত্তরঃ
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২১ উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শনিবার দুপুরে উপজেলা মৎস্য অফিসে ‘বেশি বেশি মাছচাষ করি-বেকারত্ব দূর করি’ শিরোনামে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠানের প্রথম দিনে সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ইমরান হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খামার ব্যবস্থাপক আ. রাজ্জাক মিয়া।
এমত বিনিময় সভায় সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠানসূচি তুলে ধরা হয়। এর মধ্যে প্রথম দিন সমগ্র উপজেলায় মাইকিং, ব্যানার, ফেস্টুন এর মাধ্যমে ব্যাপক প্রচারণা ও সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়। দ্বিতীয় ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংযুক্তি, উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের জলাশয়ে পোনামাছ অবমুক্তকরণ ও মৎস্য সেক্টরের বর্তমান সরকারের অগ্রগতি ও সাফল্য বিষয়ে নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন। তৃতীয় ও চতুর্থ দিন প্রান্তিক পর্যায়ের মৎস্যচাষী ও মৎস্যজীবীদের সাথে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক মতবিনিময়। পঞ্চম দিন মৎস্যচাষীদের মাছচাষ বিষয়ক বিশেষ পরামর্শ সেবা প্রদান, পুকুরের মাটি ও পানি পরীক্ষা ও মৎস্য সেক্টরে বর্তমান সরকারের অগ্রগতি ও সাফল্য বিষয়ে নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন। ষষ্ঠ দিন সুফলভোগী/মৎস্যচাষীদের প্রশিক্ষণ এবং সপ্তম দিন ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সাথে উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাদের মতবিনিময় ও মৎস্য সপ্তাহের সমাপনী।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সম্প্রসারণ কর্মকর্তা (এনএটিপি-২প্রকল্প) ও বিকল্প তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম, ক্ষেত সহকারী আব্দুল লতিফ, রোকনুজ্জামান রাকিব, মহসিনা আক্তার, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর ছামছুল ইসলাম ও বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রসঙ্গত, চারশ ৬০ দশমিক ৪২ বর্গ কিলোমিটারের গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় সরকারি পুকুর রয়েছে ২৭০টি (১৩২ হেক্টর), ব্যক্তি মালিকানাধীন পুকুর ৭১২৫টি (১২৯০ হেক্টর), সরকারি বিল ১২টি (৯১ দশমিক ৭৪ হেক্টর), খাল ১০টি (১৫০ হেক্টর), নদী ১টি (৬০০ হেক্টর), বাৎসরিক মোট মাছের চাহিদা ১০ হাজার ৯৫০ মেট্রিক টন, বাৎসরিক মাছের উৎপাদন ৯ হাজার ৯৫৮ মেট্রিক টন, হাটবাজারের সংখ্যা ২৮টি, মৎস্য খাদ্য বিক্রেতার দোকান ১০টি, মৎস্য আড়তের সংখ্যা ১০টি, সরকারি খামার ১টি, বেসরকারি হ্যাচারী ৩টি, পোনা ব্যবসায়ীর সংখ্যা ১০০জন, মৎস্যচাষীর সংখ্যা ৬ হাজার ৬০০ জন,মৎস্যজীবী সমিতির সংখ্যা ৩২টি এবং নিবন্ধিত মৎস্যজীবীর সংখ্যা ৩ হাজার ৬৩৭ জন।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More