গোবিন্দগঞ্জের চাঁদপাড়া হাটের উন্নয়নের স্বার্থে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার

এনবি নিউজ একাত্তরঃ
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার জগন্নাথপুর মৌজার গত ২১/০৯/২০২০ইং সালের সেপ্টেম্বর মাসে চাঁদপাড়া হাটের উন্নয়ন কাজের জন্য টেন্ডার সম্পূর্ন হয়। সেই মোতাবেক পূর্বের সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে পরবর্তীতে সরকারী ভাবে মার্কেট নির্মানের জন্য স্থানীয় সংসদ সদস্য উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের পরেই হাটের সীমানা নির্ধারন করে কার্যক্রম শুরু করে ঠিকাদার কতৃপক্ষ সেই সময় ০৬জানুয়ারী-২১সালে বিজ্ঞ আদালতে উপজেলার কোচাশহর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের মৃত মিজানুর রহমানের ছেলে ফয়জুল ইসলাম বাদী হয়ে,সাবেক দাগ ৫৬৭, হাল দাগ ৬৫এ জায়গার মধ্যে ওয়াকফ এষ্ট্রেটের তাদের নিজেদের ২৫শতাংশ জমি আছে দাবী করে ঠিকাদার সহ প্রশাসনের স্থানীয় প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদর বিবাদী করে বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ(চৌকি)আদালত গোবিন্দগঞ্জে একটি মামলা দায়ের করেন। এই উক্ত মামলায় বিজ্ঞ আদালত বাদী/বিবাদীকে উক্ত জমিতে কোন ধরনের স্থাপনা নির্মান না করার জন্য আদেশ জারি করে।এরপর দীর্ঘ প্রায় একবছর যাবৎ ঝুলে থাকে হাটের উন্নয়ন সরকারী ভাবে মার্কেট নির্মানের কাজ। ফলে বিপাকে পড়ে ঠিকাদার, হাটের ইজারাদার,ব্যবসায়ী সহ হাটে কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতা সাধারন। বন্ধ থাকে হাটের উন্নয়ন কাজ। দীর্ঘ এক বৎসর পর আইনজীবিদের পরামর্শে হাটের উন্নয়নের স্বার্থে জমি মাপযোগ করে অবশেষে তাদের দাবীকৃত ২৫শতাংশ জমির মধ্যে তাদের কিছু জমি পৃথক ছাহাম করে পেয়েছে উল্লেখ করে বাদী ফয়জুল ইসলাম আইনীজটিলতা নিস্পত্তি করার জন্য মামলা প্রত্যাহারের আবেদন করে মামলা প্রত্যাহার করে নেন।এই মামলা প্রত্যাহারের আবেদনে এ্যাডভোকেট সাধন চন্দ্র সাহা সাক্ষর করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন। মামলাটি প্রত্যাহারে হাটের উন্নয়ন কাজের আর কোন বাঁধা থাকবে না বলে আজ রোববার সকালে কোর্ট সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More