গোপালগঞ্জে দেশীয় প্রজাতির মাছ ও শামুক সংরক্ষণে উদ্বুদ্ধকরণ সভা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি,
গোপালগঞ্জে দেশীয় প্রজাতির মাছ ও শামুক সংরক্ষণ ও উন্নয়নে উদ্বুদ্ধকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টায় সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এসভা অনুষ্ঠিত হয়।
সদর উপজেলা মৎস্য দপ্তর এ সভার আয়োজন করে। সভায় সভাপতিত্ব করেন গোপালগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রাশের্দু রহমান।
মৎস্য ও পশু সম্পদ মন্ত্রনালয়ের উদ্যোগে ৩টি বিভাগের গোপালগঞ্জসহ ১০টি জেলা ও ৪৯ টি উপজেলায় দেশীয় প্রজাতির মাছ ও শামুক সংরক্ষণ ও উন্নয়ন প্রকল্পটি একযোগে বাস্তবায়ন করা হবে।
প্রকল্পটির বাস্তবায়নের সময় ২০২০ জুলাই থেকে ২০২৪ জুলাই। প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ২’শ ৭ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। বৈশ্বিক অতিমারি করোনা পরিস্থিতির কারনে প্রকল্পের কাজ শুরু করার আগেই এক বছর অতিক্রান্ত হয়ে যায় বলে সংশ্লিষ্ট অফিস সূত্রে জানাগেছে।
প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে দেশের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চল দেশীয় প্রজাতির মাছ, শামুক ও ঝিনুষ চাষে সমৃদ্ধ হয়ে ওঠবে। মৎসজীবিদের বিকল্প কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির পাশপাশি ঝিনুকের মুক্তা দিয়ে অলংকার তৈরী করে নারীরা স্বাবলম্বী হয়ে ওঠবে।
উদ্ভুদ্ধকরণ সভায় বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মেখ লূৎফর রহমান বাচ্চু, দেশীয় প্রজাতির মাছ ও শামুক সংরক্ষণ ও উন্নয়ন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক এস এম আশিকুর রহমান, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বেগম নিরুন্নাহার ইউসুফ, যুগান্তরের সাংবাদিক এস এম হুমায়ূন কবীর, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. ছাযেদুর রহমান, মৎসজীবি সমিতির কেন্বদ্রীয় কমিটির সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন, প্রমূখ। সঞ্চলনা করেন সদর উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা অঞ্জন বিশ্বাস।
সভায় সরকারি কর্মকর্তা, গণমাধ্যম কর্মী, মৎসজীবি ও মৎসচাষীরা উপস্থিত ছিলেন।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More