উখিয়ায় হেফজ শিক্ষার্থী হত্যার ঘটনায় ঘাতক ও তার বাবা গ্রেফতার

 

শ.ম.গফুর,উখিয়া,কক্সবাজারঃ

কক্সবাজারের উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের দক্ষিণ সোনাইছড়ি এলাকার বায়তুশ শরফ জামে মসজিদের ৯ বছর বয়সী এক কোরআনের হেফজ শিক্ষার্থী খুন হয়েছে।গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে এ ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা যায়। একই এলাকার আলমগীরের ছেলে মোঃ রিফাত নামে (১৫) এক কিশোর খুন করে আরাফাত কে। সে সোনাইছড়ির বায়তুশ শরফ জামে মসজিদস্থ হেফজ শিক্ষার্থী ছিল।

জানা গেছে,অভিযুক্ত খুনী রিফাত কয়েকদিন পূর্বে মোবাইলে ধারণকৃত তার মেয়ে বান্ধবীর সাথে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় কিছু ভিডিও নিহত আরাফাত কে দেখান। তা আরাফাত সবাইকে বলে দিবে বলে বলায়, তখন খুনি রিফাত ক্ষুদ্ধ হয়ে বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় আরাফাত মসজিদ থেকে বের হলে তখন তাকে পিছন থেকে মুখ চেপে ধরে বায়তুশ শরফ জামে মসজিদের পিছনে নিয়ে গিয়ে ধারালো ছুরি দিয়ে গলা কেটে দেয়।
খুনি রিফাত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

পরে আরাফাতের চিৎকারে কিছুক্ষণ পর তার সহপাঠী ও পরিবারের সদস্যরা এগিয়ে আসলে আরাফাতে রক্তক্ষরণ অবস্থায় উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে।রাতে উখিয়া থানার ওসি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে খুনি রিফাতের বাবাকে আটক কর। রাতে ফের অভিযান চালিয়ে খুনি রিফাত কে আটক করে উখিয়া থানা পুলিশ।

সন্তানের এমন মৃত্যুে যেন কিছুতেই মেনে নিতে পারছেনা আরাফাতের মা-বাবা।তাদের আহাজারিতে এলাকার বাতাস ভারী হয়ে উঠে।এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানান নিহত আরাফাতের এক মামা।খুনি রিফাতের ফাঁসি দাবী করেছে এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আহমেদ সঞ্জুর মোরশেদ বলেন আমরা অবগত হয়েছি, খুনি মোঃ রিফাত এবং তার বাবা আলমগীর কে আটক করতে সক্ষম হয়েছি এছাড়া নিহত পরিবারের পক্ষ থেকে এখনো পর্যন্ত মামলা করেনি।যদি মামলা হয় তাহলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More