উখিয়ার মেম্বার হেলাল উদ্দিনের প্রতিক্রিয়া- দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনে জনগণের পাশে থাকাটা গুরুত্বপূর্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক.উখিয়া,কক্সবাজার:

আসসলামুআলাইকুম, আদাব, নমস্কার….

সবাইকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের অগ্রীম শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। আশা করি সবাই ভালো আছেন। কিন্তু করোনাকালীন লকডাউন ও পবিত্র রমজানে নিম্ন আয়ের জনগোষ্ঠীরা আসলেই খুবই মানবেতর জীবনযাপন করছে। ঠিক এই সময়ে একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে গরীব অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোটাই আমার দায়িত্ব ও কর্তব্যের মধ্যে পড়ে। সে দায়িত্ব ও কর্তব্যকে সামনে রেখেই চেষ্টা করেছি মানুষের পাশে দাড়ানোর।

পবিত্র রমজানের শুরুতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উপহার ভিজিডির ৩০ কেজি করে চাল বিতরণ রাজাপালং ইউনিয়নে ৯নং ওয়ার্ডে সর্বপ্রথম উদ্বোধন করেন সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদি। এসময় প্রায় ৫ শতাধিক মানুষকে ৯০ কেজি চাল বিতরণ করা হয়। এরপরের দিনই সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর আওতায় ১০ টাকায় কেজিতে চাল বিতরণ করা হয়। যেখানে সহায়তা পেয়েছে প্রায় সাড়ে ৪শ জন।

এর কয়েকদিন পরে উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমদের সহযোগিতায় বেসরকারী সংস্থার মাধ্যমে ৩৮০ পরিবারকে ইফতারী বিতরণ করি। এরপরে আরেকজন দানশীল ব্যক্তির মাধ্যমে ১৫০ পরিবারকে সহায়তা প্রদান। সাথে ব্যক্তিগত ভাবে ৫০ পরিবারকে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করি।

পরবর্তীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহার ৪৫০/- টাকা করে প্রায় ৬ শ জনকে ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে প্রদান করা হয়।

এরপরে ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের ১৫১নেতা-কর্মীর মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করা হয়। এরপরে আরেকটি বেসরকারী সংস্থা প্রান্তিকের মাধ্যমে শতাধিক পরিবারকে সহায়তা দেয়া হয়। আরেকটি বিষয় উল্লেখ না করলেই নয় সেটি হচ্ছে বেসরকারী সংস্থার মাধ্যমে আমার ওয়ার্ডের বিভিন্ন মসজিদে প্রায় হাজার খানেক মানুষকে ইফতারীর প্যাকেট বিতরণ করা হয়েছে।

এসব প্রক্রিয়া ছিলো সম্পূর্ণ স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ। পবিত্র রমজান ও করোনাকালীন সময়ে আমার ওয়ার্ডের প্রায় ২ হাজারের অধিক মানুষ সরকারি ও বেসরকারীভাবে সহায়তা পেয়েছে আমার জন্য খুবই আনন্দদায়ক ও স্বস্তির। একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে জনগণের বিপদে পাশে থাকাটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। চেষ্টা করেছি পাশে থাকার। ভবিষ্যতেও পাশে থাকার চেষ্টা থাকবে।
সবাইকে আবারো পবিত্র ঈদের শুভেচ্ছা ঈদ মোবারক।সব শেষে যে মানুষগুলোকে কৃতজ্ঞতা জানাতেই হয়,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা,মাননীয় সংসদ সদস্য শাহীন আক্তার সাবেক সংসদ সদস্য
আবদুর রহমান বদি উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমদ ও রাজাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী।

মতামত দিন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More