উখিয়ার বিভিন্ন ক্যাম্প থেকে ৫ “আরসা” সদস্য রোহিঙ্গা গ্রেফতার

 

শ.ম.গফুর,উখিয়া,কক্সবাজারঃ

কক্সবাজারের উখিয়ার বিভিন্ন ক্যাম্প থেকে কথিত আরসা বাহিনীর ৫ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটক করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন। তারা আরসা’র নাম ভাঙ্গিয়ে ক্যাম্প অভ্যন্তরে নানা অপরাধে লিপ্ত ছিল।

১৪ এপিবিএন’র অধিনায়ক (পুলিশ সুপার) মো. নাইমুল হক জানান, শুক্রবার রাত থেকে শনিবার ভোররাত পর্যন্ত উখিয়া উপজেলার বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ অভিযান চালানো হয়।

আটকরা হল, উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জি-১৪ ব্লকের মৃত সুলতান মোহাম্মদের ছেলে খালেদ হোসেন (৩৩), লম্বাশিয়া ১-ইস্ট নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ই-১৩ ব্লকের মৃত আমির হোসেনের ছেলে মাস্টার সৈয়দ (৩৮), একই ক্যাম্পের জি-১১ ব্লকের আবুল খায়েরের ছেলে মোহাম্মদ শাকের (৩৫), বি-৩ ব্লকের নূর বশরের ছেলে মোহাম্মদ (১৮) ও ডি-৫ ব্লকের মৃত মোহাম্মদ রশিদের ছেলে মোহাম্মদ ইলিয়াস (২২)।

আটক সন্ত্রাসীদের কথিত সংগঠন ‘আরসা বাহিনীর’ বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে নিহতের স্বজনসহ নানা মহলের।

পুলিশ সুপার নাইমুল বলেন, রোহিঙ্গা নেতা মোহাম্মদ মুহিবুল্লাহ হত্যা ঘটনার পর ক্যাম্পের আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এপিবিএন সহ আইন-শৃংখলা বাহিনীর অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার রাত থেকে শনিবার ভোররাত পর্যন্ত উখিয়ার বিভিন্ন ক্যাম্পে এপিবিএন’র একটি বিশেষ দল অভিযান চালায়।

” এতে রোহিঙ্গা ক্যাম্প কেন্দ্রিক সক্রিয় সন্ত্রাসী গোষ্টি কথিত আরসা বাহিনীর সাথে জড়িত ৫ সদস্যকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া আটক সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় চাঁদাবাজি, হত্যা, অপহরণ, ডাকাতি, মাদকপাচার, মানবপাচার ও পুলিশ এসল্ট মামলাসহ বিভিন্ন অভিযোগে উখিয়া থানায় মামলা রয়েছে। ”

আটক সন্ত্রাসীদের উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন এপিবিএন’র এ কর্মকর্তা।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More